গরমে সুস্থতায় করণীয়

এই গরমে সঙ্গে আমাদের শরীরের তাপমাত্রাও বৃদ্ধি পায়।এর জন্য প্রচুর ঘাম হয়, ঘামের সঙ্গে আমাদের শরীরের প্রয়োজনীয় পানি ও লবণ বেড়িয়ে যায়। যার কারণে পানির অভাবে আমাদের শরীরে পানিশূন্যতা নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও শরীরে লবণের অভাব হলে মাসলপুল করে।এই সমস্যাগুলো থেকে মুক্তির পেতে করণীয় :

পানিশূন্যতা লক্ষণ ও প্রতিকার:

যখন আমাদের প্রস্রাব অতিরিক্ত হলুদ হয়, তখন বুঝতে হবে আমাদের শরীরে পানির কমতি। কোষ্ঠকাঠিন্য হলে, ত্বক, ঠোঁট, মুখ শুষ্ক লাগে, ঘন ঘন তেষ্টা পায় এবং প্রায়ই সংক্রমণ হলে বুঝতে হবে পানিশূন্যতায় ভুগছি। পানিশূন্যতা থেকে মুক্তি পেতে শরীরের তাপমাত্রার অত্যধিক বৃদ্ধি ও পানিশূন্যতা রোধ করার জন্য, শরীরের অতিরিক্ত পানি পান করতে হবে। এজন্য আমাদের খাবারের প্রতি সচেতন হতে হবে ।শরীরের আর্দ্রতা ধরে রাখতে দিনে ৩ থেকে ৪ লিটার বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে। গরমে সুস্থ সতেজ থাকতে পানি পানের কোনো বিকল্প নেই।

ঠান্ডা জুস :

শরীর ঠাণ্ডা রাখতে ভিটামিন, খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ লেবু, আখের রস, তরমুজ, শসা, কাঁচা আমের ইত্যাদি নানান পুষ্টিকর জুস নিয়মিত পান করতে হবে।

ঘামাচি :


গরমে ঘাম থেকে অনেক সময় ঘামাচি হয়। এই অস্বস্তি থেকে মুক্তি পেতে—
দুই চা চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ঘামাচির ওপর লাগিয়ে কয়েক মিনিট রেখে নরম কাপড় দিয়ে ঘষে ঘষে ধুয়ে ফেলুন। বেকিং সোডা ইনফেকশন দূর করে ও ত্বকে আরাম দেয়।
এক টুকরো সুতির পাতলা কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ নিয়ে আস্তে আস্তে ঘামাচির উপর বরফ বুলিয়ে নিন ও চেপে ধরুন।
গরমে বারবার পানি দিয়ে মুখ, হাত, পা ধুয়ে নিন,ডাবের পানি, পুষ্টিকর টাটকা খাবার, শাকসবজি, ফল বেশি পরিমাণে খান।

সূর্যের তাপ থেকে সুরক্ষা রাখা :

গ্রীষ্মে প্রখর রোদে আমাদের শরীরে নানা রকম অসুখ বেসুক দেখা দেয়।তাই আমাদের উচিত সর্বদাই সূর্যের তাপ থেকে নিজেকে সুরক্ষা রাখা।আর এই সুরক্ষার জন্য আমাদের যা যা করণীয় তাই করতে হবে যেমন :জরুরি কাজ ছাড়া রোদে না বের হওয়া,রোদে বাইরে যাওয়ার সময় ছাতা ব্যাবহার করা,সূর্যের তাপ থেকে চোখকে সুরক্ষা জন্য ব্ল্যাক সানগ্লাস ব্যাবহার করা |

 

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *